দেশের সমস্ত জেলায় জনৌষধি কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে

তন্ময় দও Sep 18, 2020 - Friday ময়নাগুড়ি 41


কেন্দ্রীয় সার ও রাসায়নমন্ত্রী শ্রী ডি ভি সদানন্দ গৌড়া বলেছেন, সাধারণ মানুষ বিশেষত দরিদ্রদের কথা বিবেচনা করে, সরকার, সাশ্রয়ী দামে গুনমানসম্পন্ন ওষুধ সরবরাহ করার পরিকল্পনা করেছে। ২০২৪ সালের মার্চ মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী জনৌষধি কেন্দ্রগুলির (পিএমবিজেকে) সংখ্যা বাড়িয়ে ১০৫00 করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ফার্মাসিউটিক্যালস দপ্তরের ব্যুরো অফ ফার্মা পিএসইউস অফ ইন্ডিয়া (বিপিপিআই) পিএমবিজেকে গড়ে তুলছে। প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় জনৌষধি কেন্দ্রগুলি (পিএমবিজেপি) বিপিপিআই গড়ে তুলছে।




দেশের সব জেলাতে জনৌষধি কেন্দ্র গড়ে উঠবে। এটি দেশের প্রতি প্রান্তে জনসাধারণের কাছে সাশ্রয়ী মূল্যের ওষুধের সহজ পৌঁছনার বিষয়টিকে নিশ্চিত করবে। ২০২০ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে এই ধরণের কেন্দ্রের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৬০৩।


২০২০ সালের মার্চ থেকে জুন মাসের মধ্যে, কোভিড মহামারীর লকডাউনের কারণে এবং পরবর্তীতে, কেন্দ্রীয় এবং আঞ্চলিক গুদামগুলি থেকে খুচরা দোকানে ওষুধ সরবরাহের ক্ষেত্রে এপিআই এবং অন্যান্য কাঁচামালের ঘাটতি এবং ওষুধ সরবরাহের সমস্যার কারণে পিএমবিজেকে অনেক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। পরিবহন সংক্রান্ত বিষয় সহ অন্যান্য নানা সমস্যার কথা বিবেচনা করে এই কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়ানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সমস্ত কেন্দ্রগুলিতে ওষুধ পাঠানোর নিশ্চিতকরণের জন্য কার্যকর আইটি-ভিত্তিক লজিস্টিকস এবং সরবরাহ শৃঙ্খল গড়ে তোলার কাজ শুরু করা হচ্ছে।





বর্তমানে জনৈষধি কেন্দ্রের চারটি গুদাম গুরুগ্রাম, চেন্নাই, বেঙ্গালুরু এবং গুয়াহাটিতে রয়েছে।পশ্চিম এবং মধ্য ভারতে আরও দুটি গুদাম খোলার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এছাড়াও, সরবরাহ শৃঙ্খল ব্যবস্থা শক্তিশালী করার জন্য রাজ্য / কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিতে ডিস্ট্রিবিউটরদের নিয়োগের কথাও ভাবা হচ্ছে।





পুরো প্রকল্পে ৪,৯০ কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন করা হয়েছে। ২০২০-২১ থেকে ২০২৪-2৫ সালের মধ্যে এই প্রক্লপের কাজ শেষ হবে । পিএমবিজেপি প্রকল্পটি উন্নত মানের ওষুধের দাম কমিয়েছে এবং এই ওষুধ দরিদ্র সহ বিপুল সংখ্যক জনসাধারণের কিনতে সমস্যা হবে না।



পিআইবি সুত্রে উপরোক্ত বিষয় জানা গেছে।

আপনাদের মূল্যবান মতামত জানাতে কমেন্ট করুন ↴

সবার আগে খবর পেতে , পেইজে লাইক দিন

আপনার পছন্দ

বিজ্ঞাপন
HS01


আরও খবর

বিজ্ঞাপন
PMBJK DHUPGURI
HS01