পণ্যবাহী ট্রাকে মানুষ বোঝাই, প্রতিদিন একই দৃশ্য ডুয়ার্সে

দেবজ্যোতি চ্যাটার্জী May 01, 2019 - Wednesday মালবাজার 107


ডুয়ার্সের চাবাগান গুলিতে এখন সবুজ কাচা পাতায় ভরে গেছে। সেই কাচা পাতা তোলা হয়। কারখানায় নিয়ে কালো দানাদার চা তৈরি হয়। চা দোকানে বসে সকাল বিকাল চা পান করে চলে মৌতাত আড্ডা। এখন ডুয়ার্সের চাবাগান গুলিতে কাচাপাতা তোলার মরসুম। একাজের সিংহভাগ শ্রমিক মহিলা। এসময় চা বাগান গুলি পাতা তোলার জন্য স্থায়ী শ্রমিকদের পাশাপাশি অস্থায়ী শ্রমিকও নিয়োগ করে। স্থানীয় ভাষায় এই অস্থায়ী শ্রমিকদের বলা হয় বিঘা শ্রমিক। চাবাগান গুলি সাধারণত চাবাগানের বেকার নারী ও পুরুষদের এই কাজে লাগায়। আবার কোন কোন চাবাগান বাইরে বন্ধ চাবাগান কিম্বা গ্রামাঞ্চল থেকে অস্থায়ী শ্রমিকদের নিয়ে আসে। এই নিয়ে আসার কাজে কোন যাত্রীবাহী বাস ব্যবহার করা হয় না। এই অস্থায়ী শ্রমিকদের পণ্যবাহী ট্রাকে অথবা পিকআপ ভ্যানে চাপিয়ে গাদাগাদি করে ভীরে ঠাসাঠাসি করে নিয়ে আসা হয়। আবার কাজ শেষ হলে একই ভাবে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। জীবনের ঝুকি নিয়ে প্রতিদিন কয়েক হাজার মহিলা শ্রমিক এভাবেই পাতা তুলে রোজগারের আশায় বিভিন্ন চাবাগানে পাড়ি দেয়। চোখের সামনে প্রতিদিন অমানবিক ভাবে সম্পুর্ন বেআইনি প্রক্রিয়ায় মানুষ পরিবহন করা হয়। এদৃশ্য প্রতিদিন দেখেও প্রশাসনের কর্তারা নির্বিকার। বিশেষ করে ডুয়ার্সের বন্ধ চাবাগান থেকে এভাবেই মানুষ পরিবহন করা হয়। প্রতিদিন সকালে গ্রাসমোর, মানাবাড়ি, সহ বিভিন্ন চাবাগানে গেলে এদৃশ্য চোখে পড়বে। প্রশাসন এব্যাপারে নিরব হলেও সরব হয়েছে ডুয়ার্সের পরিবেশ প্রেমী ও সমাজকর্মীরা। চালসার পরিবেশ প্রেমী মানবেন্দ্র দে সরকার বলেন, এভাবে মানুষ পরিবহন অনৈতিক। শুধু চাবাগান নয়, হাটে বাজারে জীবনের ঝুকি নিয়ে এভাবেই মানুষ চলাচল করে। এভাবে পরিবহন করতে গিয়ে অনেক সময় দুর্ঘটনা ঘটে। যেহেতু পন্যবাহী গাড়ি সেজন্য দুর্ঘটনায় পড়লে ক্ষতিপুরন পাওয়া যায় না। সমস্যায় পড়তে হয়। প্রশাসনের কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।


সমাজকর্মী কল্যাণ সরকার বলেন, এভাবে মানুষ কেন? পশু পরিবহন নিষেধ। কিন্তু কেউ গ্রাহ্য করে না। এভাবে ট্রাকে ও ট্যাক্টারে যাতায়াতের করতে গিয়ে এর আগে দুর্ঘটনা ঘটেছে। মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। কেউ সজাক হয়নি।


এই নিয়ে মালের ট্রাফিক ওসি ফজলুল হক বলেন, এটা বেআইনি।ধরলে এম ভি এক্টে কেস হবে।


বেআইনি, অমানবিক এবং অনৈতিক হওয়া সত্বেও প্রতিদিন এই দৃশ্য নজরে আসে। ভীরে ঠাসাঠাসি করে ট্রাক বা পিকআপ ভ্যানে শ্রমিক পরিবহনের কাজ চলছে। সবার নজরে থাকা সত্বেও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

আপনাদের মূল্যবান মতামত জানাতে কমেন্ট করুন ↴

সবার আগে খবর পেতে , পেইজে লাইক দিন

আপনার পছন্দ

বিজ্ঞাপন
PMBJK DHUPGURI

আরও খবর

বিজ্ঞাপন
Jishu da
HS01